গাইবান্ধার শাহেনশাহ্’র ওজন ২৭ মণ

গাইবান্ধার শাহেনশাহ্’র ওজন ২৭ মণ

স্টাফ রিপোর্টারঃ দৈর্ঘ্যে ৭ফুট, উচ্চতায় ৫ফুট ৩ ইঞ্চি। কালো-লালচে মিশ্র বর্ণের শাহীওয়াল জাতের ষাড়টি দেখতে যেমন আকর্ষনীয়, শক্তি-সামর্থেও এগিয়ে। তাই খামারী ষাড়টির নাম রেখেছেন উত্তরের শাহেনশাহ। স্বাভাবিক খাবারের পাশাপাশি মাল্টা তার বেশ পছন্দের।
উত্তরের জনপদ গাইবান্ধার পৌরসভার পূর্ব কোমরনই এলাকার খামারী শহীদুল ইসলাম পোটল জানান, শাহেন শাহ্’র ওজন প্রায় ২৭ মণ। কোরবানী ঈদে বিক্রির টার্গেট নিয়ে শাহেন শাহ’র জন্য বেশ খরচও করেছেন তিনি। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে অতিরিক্ত ওজনের ষাড়টির ন্যায্য দাম পাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তায় পড়েছেন তিনি। খামারী পোটল বলেন, পাইকার কিংবা ক্রেতাদের তেমন সাড়া মিলছে না। বিক্রি করতে না পারলে শাহেনশাহকে নিয়ে বেকায়দায় পড়তে হবে এমন আশংকা তার। 
শাহেনশাহ’র বয়স সাড়ে চার বছর। স্বাভাবিক খাবার সবুজ ঘাস, ভূষি, খৈল, ভূট্টা, খড়ের পাশাপাশি মাল্টা বেশী পছন্দ শাহেনশাহ’র। শহীদুল ইসলাম পোটল জানান, চলমান করোনা পরিস্থিতির কারণে গরুটির ন্যায্য মূল্য নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন তিনি। যে দুয়েকজন ক্রেতা শাহেনশাহকে দেখেছেন তারা ১০ লাখের উপর দাম হাঁকছে না। তার দাবী ইতিমধ্যে শাহেনশাহ’র খাবার ও অন্যান্য বাবদ খরচই হয়েছে প্রায় ১০ লাখ টাকা।