গাইবান্ধায় বৃটিশ বিরোধী বিপ্লবীদের মরণত্তোর সম্মাননা

গাইবান্ধায় বৃটিশ বিরোধী বিপ্লবীদের মরণত্তোর সম্মাননা

স্টাফ রিপোর্টারঃ বৃটিশ সাম্রাজ্যবাদের কবল থেকে ভারতবর্ষকে মুক্ত করার লক্ষ্যে যেসব বিপ্লবী ও সংগ্রামী মানুষ আত্মদান করেছেন, নির্যাতিত হয়েছেন তারা এখনও মানবমুক্তির সংগ্রামে আমাদের প্রেরণা যুগিয়ে চলেছেন। তাদেরকে মরণোত্তর সম্মাননা জানানোর মধ্য দিয়ে আমরা নিজেরা গৌরবান্বিত হচ্ছি। শনিবার (২ জানুয়ারি) গাইবান্ধা সামাজিক সংগ্রাম পরিষদের উদ্যোগে গাইবান্ধা ও জয়পুরহাটের দশজন সংগ্রামী মানুষের সম্মাননা অনুষ্ঠানের বক্তারা এ কথা বলেন।

গাইবান্ধা পাবলিক লাইব্রেরী মিলনায়তনে সংগঠনের আমিনুল ইসলাম গোলাপের সভাপতিত্বে অগ্নিযুগের অগ্নিপ্রভা শীর্ষক অনুষ্ঠানে আলোচনায় অংশ নেন সংগ্রামীদের স্বজনদের পক্ষে কবি গোলাম কিবরিয়া পিনু, দেবাশীষ দাশ দেবু, ধরিত্রীন্দু বর্মন, দিল আফরোজা হ্যান্ডি, রবিউল ইসলাম, আজিজুল রেজা, সংগঠনের সদস্য সচিব জাহাঙ্গীর কবীর তনু প্রমুখ।

বৃটিশ বিরোধী আন্দোলনের সময়ের সংগীত পরিবেশন করেন মশিউর রহমান, রণজিৎ সরকার, চুনি ইসলাম ও সোমাসেন। সৈয়দ শামসুল হকের নুরুলদীনের সারাজীবন নাটকের সংলাপ উচ্চারণ করেন শিরিন আকতার। কবিতা আবৃত্তি করেন পত্রলেখা দাশ তুনতুন, অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন জহুরুল কাইয়ুম। যে দশজনকে সম্মাননা জানানো হয় তারা হলেন- আন্দামানবন্দী বিপ্লবী ডা. আব্দুল কাদের চৌধুরী, পরেশ চন্দ্র (ব্যাং) চৌধুরী, যোগেশ  চন্দ্র দাশ, সংগ্রামী ডা. শীকা চন্দ্র সরকার, হরিশ চন্দ্র চৌধুরী, শাহ মজিবর রহমান, ফজর উদ্দিন তালুকদার, নির্মলেন্দু বর্মন, আবুল  মকসুদ এবং এমকে রহিম উদ্দিন। তাদের স্বজনদের ফুলেল শুভেচ্ছা ও সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। এ উপলক্ষে অগ্নিযুগের অগ্নিপ্রভা নামে একটি স্মরণিকাও প্রকাশ করা হয়।