গাইবান্ধার প্রথম শহীদ মিনার

গাইবান্ধার প্রথম শহীদ মিনার

গাইবান্ধা শহরের প্রাণকেন্দ পৌর পার্কে অবস্থিত জেলার প্রথম শহীদ মিনার। পশ্চিমে পার্ক রোড। উত্তরে স্টেশন রোড ও গাইবান্ধা পৌর ভবন। দক্ষিণে পৌর পার্কের বিশাল পুকুর। পুকুরের ওপাড়েই শতবর্ষের ঐতিহ্যবাহী পাবলিক লাইব্রেরি। পূর্বে মিনার সংযুক্ত পাকা অংশ শহীদ মিনার চত্বর বা কড়ই তলা। এই শহীদ মিনার চত্বরটি বিভিন্ন অনুষ্ঠানের স্পট হিসেবে ব্যবহূত হয়ে থাকে। শহরে ঢুকলে কারো দৃষ্টি এড়ায় না এই মিনার। এটি প্রতিনিয়ত ভাষা আন্দোলনের কথা মনে করিয়ে দেয়। শহীদ মিনারটি গড়ে ওঠার পিছনে রয়েছে ভাষা সৈনিকদের অনেক ত্যাগ। ১৯৪৮ থেকে ১৯৪৯ সাল পর্যন্ত যারা স্থানীয়ভাবে ভাষার জন্য আন্দোলন করেছিলেন তাদের উদ্যোগেই এটি গড়ে উঠে। ১৯৫৫ সালে গাইবান্ধায় প্রথম শহীদ মিনার প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নিয়েও সফল হয়নি। পরে ১৯৫৬ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদের কয়েকজন বর্তমান শহীদ মিনারের জায়গায় কাপড়ে ইট মুড়িয়ে ধরাধরি করে প্রথম শহীদ মিনারের ভিত্তি স্থাপন করেন। নেতৃত্বে ছিলেন তত্কালিন জেলা আওয়ামী লীগ নেতা তজলিম উদ্দিন খান, হাসান ইমাম টুলু, খান আলী তৈয়ব, মতিউর রহমান, ভাষা সৈনিক কার্জন আলীসহ নাম অজানা অনেকে। -ইত্তেফাক।